,
শিরোনাম
জগন্নাথপুরে এ সাদেক ইন্টারন্যাশনাল একাডেমির প্রতিষ্ঠাতাকে সংবর্ধনা প্রদান মাও: এমদাদুর রহমান (রহ:) মেমোরিয়াল ট্রাস্ট এর উদ্যোগে জননেতা আশরাফুল ইসলামের অর্থায়নে পবিত্র ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে দরিদ্র হতদরিদ্র দুই শতাধীক পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরন মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রেড ব্লাড সিলেট এর  শ্রদ্ধাঞ্জলি ও পুষ্পস্তবক অর্পণ নিউইয়রকে ইউএস বাংলা অনলাইন প্রেস ক্লাবের অভিষেক সম্পন্ন : সভাপতি মাহফুজ আদনান, সাধারন সম্পাদক আবু সাদেক রনি ‘রেড ব্লাড সিলেট’র উদ্যোগে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুর উপজেলায় রেল সংযোগ প্রসঙ্গে জগন্নাথপুরের কলকলিয়ায় ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল এ সাদেক ইন্টারন্যশনাল একাডেমির বই উৎসব জগন্নাথপুরে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল এ সাদেক ইন্টারন্যশনাল একাডেমির শুভ উদ্বোধন সিলেটে কলেজছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার লন্ডন-আমেরিকার মহব্বতের দরকার নেই : জগন্নাথপুরে পরিকল্পনামন্ত্রী

কে লিখেছিল প্রয়াত নায়ক সালমানের সেই সুইসাইড নোট

দৃক নিউজ২৪ ডেস্ক#

‘আমি চৌধুরী মোহাম্মদ শাহরিয়ার, পিতা-কমর উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, ১৪৬/৫, গ্রিনরোড, ঢাকা-১২১৫ ওরফে সালমান শাহ এই মর্মে অঙ্গীকার করছি যে আজ অথবা আজকের পরে যেকোনো দিন মৃত্যু হলে তার জন্য কেউ দায়ী থাকবে না। স্বেচ্ছায়, সজ্ঞানে, সুস্থ মস্তিষ্কে আমি আত্মহত্যা করছি। এটি হচ্ছে জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহের আত্মহত্যার আগে তার লিখিত আত্মহত্যা নামা। তিনি আত্মহত্যার আগে এই সুইসাইড নোটে আত্মহত্যার ব্যাপারে জানিয়েছিলেন। পরবর্তীতে পুলিশ সুইসাইড নোটটি পায়।২১ বছর পর সালমান শাহের মৃত্যু রহস্য ফের নতুনভাবে আলোচনায় এসে নতুন মোড় নিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ও সালমান শাহ হত্যাকাণ্ড মামলার ৭ নম্বর আসামি রাবেয়া সুলতানা রুবি গত সোমবার সালমান আত্মহত্যা করেননি তাকে খুন করা হয়েছিল বলে দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিওবার্তা প্রকাশ করেন। যা ইতোমধ্যে আলোচনার কেন্দ্রবিন্ধুতে পরিণত হয় অতিমাত্রায় ভাইরাল হওয়ায়। এই সুইসাইড নোট সালমানের মৃত্যুদিবস ১৯৯৬ সালের ৬ ;সেপ্টেম্বর সকালে রাজধানীর নিউ ইস্কাটন গার্ডেন এলাকায় সালমানের ভাড়া বাসায় পাওয়া যায়। একই জায়গা থেকে সালমান শাহের লাশও উদ্ধার করা হয়। সেই সময়ে সালমানের বাসা থেকে পুলিশ একটি সুইসাইড নোট বা আত্মহত্যার চিঠি উদ্ধার করে। পরে সালমানের বাবা কমর উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী ছেলের অপমৃত্যুর মামলা করেন রমনা থানায়।কিন্তু সুইসাইড নোট বিশ্লেষণ করার পর অনেক প্রশ্ন বেরিয়ে আসে। এই নোটে শেষে কারও স্বাক্ষর ছিল না। সিআইডির হস্তবিশারদেরা চিঠিটা পরীক্ষা করে বলেন, এটা সালমান শাহের হাতের লেখা। যদিও বিষয়টি অস্বীকার করেন সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরী। তিনি দাবী করেন এই লেখা সালমানের লেখাক নয়। এই নোট সালমান নয়, হত্যাকারীরা লিখেছ।নীলা চৌধুরী বলেন, ‘আমরা ওকে ইমন নামেই ডাকতাম। অথচ চিঠিতে ইমন নামের কোনো অস্তিত্ব নেই। ও থাকে ইস্কাটনের বাসায়। কিন্তু ঠিকানা লেখা আছে আমাদের বাসার। সালমান শাহ নামটিও ঠিকানার পরে লেখা। কোনো ব্যক্তি আত্মহত্যা করার আগে এ রকম গুছিয়ে বাবার নাম, ঠিকানা উল্লেখ করে চিঠি লেখে বলে আমার জানা নেই। এ চিঠি যারা আমার ছেলেকে খুন করেছেন তারাই লিখেছেন। যেহেতু সম্প্রতি সালমান হত্যার ৭ নম্বর আসামি রুবি ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন সালমানকে হত্যা করা হয়েছে। এবং পোস্টমোর্টেম রিপোর্টে এটি প্রমাণিত যে সালমান আত্মহত্যা করেছে সে ক্ষেত্রে বিষয়টি ঘোলাও হচ্ছে। প্রশ্ন হচ্ছে অভিনেতাকে হত্যাকরা হলে এই সুইসাইড নোটের লেখাটা কার?

সূত্র সময়ের কন্ঠস্বর”

     More News Of This Category

ফেসবুকে আমরা

 

 

Prayer Time Table

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ভোর ৩:৫৫
  • দুপুর ১১:৫৮
  • বিকাল ৪:৩২
  • সন্ধ্যা ৬:৩৭
  • রাত ৮:০০
  • ভোর ৫:১৬